তিন মিটার ওপরে ভাঁজ করে রাখা হল কাবার গিলাফ

পবিত্র হজ উপলক্ষে কাবা শরিফের গিলাফ তিন মিটার ওপরে ভাঁজ করে রেখেছে সৌদির হজ ব্যবস্থাপনা ক'র্তৃপক্ষ। ভাঁজ করা অংশটুকু সাদা কাপড় দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়েছে।

৯ জিলহজ আরাফার দিন (হজের দিন) পুরোনো এই গিলাফটি পরিবর্তন করে নতুন গিলাফ লাগানো হবে। হজের সূচনা থেকেই এমনটি করা হয়ে থাকে বলে হারামাইন ক'র্তৃপক্ষের বরাতে আল আরাবিয়া জানিয়েছে।
প্রতি বছর হজের দিন পবিত্র কাবা শরিফের কিসওয়া বা গিলাফ পরিবর্তন করে নতুন গিলাফ পরানো 'হতো। এবার হজের প্রস্তুতির শুরুতেই কাবা শরিফের নিরাপ'ত্তা ও পরিচ্ছন্নতার নিশ্চিত করতে কিসওয়া বা গিলাফের নিচের অংশ উঠিয়ে ফেলা হয়েছে।

তাওয়াফের সময় হাজিরা কিসওয়া বা গিলাফ স্পর্শ করে। অনেক সময় হাজিদের অতিরিক্ত স্পর্শ কাবা শরিফের গিলাফ ছিড়ে যায়। তাই নিরাপ'ত্তার স্বার্থে কাবা শরিফের গিলাফ নিচের দিক থেকে উপরে উঠিয়ে রাখা হয়েছে।

যদিও এ বছর হজের সময় কাবা শরিফের চারদিকে নিরাপ'ত্তা ব্যারিকেড থাকবে। তারপরও অতিরিক্ত নিরাপ'ত্তা স্বরূপ হজে অংশগ্রহণকারীদের স্বাস্থ্য নিরাপ'ত্তা ও কাবা শরিফের নিরাপ'ত্তায় এ ব্যবস্থা নিয়েছে সৌদি আরবের স্বাস্থ্য অধিদ'প্ত র।

মসজিদে হারাম তথা কাবা শরিফ ও মসজিদে নববির মহাপরিচালক, প্রধান ইমাম ও খতিব ড. আব্দুর রহমান সুদাইসি এ বি'ষয়ে বলেন, প্রতি বছরের মত এ বছর হজ মৌসুমে কাবার গিলাফ উপরে ওঠানোর প্রস্তুতি শুরু করা হয়েছে। বুধবার খুব ভোরে প্রায় ৫০ জন দক্ষ কর্মী এ উত্তোলনের কাজে অংশ নেয়।

উল্লেখ্য মহা'মা'রি করো’না ভাইরাসের কারণে এবার কড়াকড়ি রয়েছে হজ পালনে। হজের সময় কাবা শরিফ স্পর্শ না করেই হজ আ'দায় করতে হবে হাজেদের। নামাজের সময় তো বটেই, কাবা শরিফ তাওয়াফের সময়ও দেড় মিটার দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে।

১৯ জুলাই হজে অংশগ্রহণকারীদের ৭ দিনের আইসোলেশন শুরু হয়েছে। আগামী ২ আগস্ট পর্যন্ত হজের কার্যক্রম চলবে। এ সময়ের মধ্যে হজের রোকন তথা মিনা, মুজদালিফা ও আরাফায় বিনা অনুমতিতে প্রবেশাধিকারে ১০ হাজার রিয়াল জরিমানার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। যথাযথ স্বাস্থ্য নিরাপ'ত্তার মাধ্যমেই এবার হাজিদের হজের কার্যক্রম চালাতে হবে।

Facebook Comments

Related Articles

Back to top button